সিএএ, এনআরসি প্রতিবাদকারীদের মারধোর বইমেলাতেই; পরে বিধাননগর থানাতেও মার | The Background

Tuesday, October 27, 2020

Contact Us

Google Play

সিএএ, এনআরসি প্রতিবাদকারীদের মারধোর বইমেলাতেই; পরে বিধাননগর থানাতেও মার

The Background:

UPDATED

গোপন আঁতাত আর নেই গোপনে। রাজ্যপালের সঙ্গে সেটিং সারা। আজ বইমেলাতেও সিএএ, এনআরসি’র বিরোধিতা করায় প্রতিবাদীদের মারধোর করল পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পুলিশ ও বিজেপির গুণ্ডাবাহিনি।প্রতিদিনই বইমেলা চত্বরে এই কালাকানুনের বিরুদ্ধে নানান ভাবে প্রতিবাদ সংগঠিত হচ্ছে। শনিবারও তার ব্যতিক্রম ছিল না। কিন্তু এই দিনই মার খেল প্রতিবাদকারীরা। পুলিশ ও গুন্ডাবাহিনির যোগসাজশে। গানে কবিতায় প্রতিবাদ করছিল পড়ুয়া থেকে কবি, সাহিত্যিক ও লিটল ম্যগাজিনের সঙ্গে যুক্ত লেখক কর্মীরা। অনেকক্ষণ থেকে তাদের হুমকি দিচ্ছিল এবিভিপি-র কর্মীরা। পরিস্থিতি অশান্ত হয় বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার আগমনে। প্রতিবাদীদের ওপর চড়াও হয় এবিভিপি কর্মীরা। পুলিশও এসে মারধোর করে প্রতিবাদীদের। প্রতিবাদকা্রীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি চলে। কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে বিধাননগর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। উল্লেখ্য, কোন এবিভিপি কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। থানাতেও বিক্ষোভ চলে। গ্রেপ্তারকারীদের ছাড়ার দাবীতে থানাতেও বিক্ষোভ চলে। পুলিশ এখানেও প্রতিবাদকারীদের উপর চড়াও হয়। এখানে পুলিশ মারধোর করে অধ্যাপক সৌম্য শাহিন, রিতজা তাজ সহ কয়েকজনকে। রিতজা পরে জানিয়েছে, তাদের পুলিশ প্রচণ্ড মেরেছে। লাঠি, ঘুষি চালিয়েছে। পুরুষ পুলিশ তাকে জামা ধরে, লাথি মেরে থানার বাইরে ফেলে দিয়েছে বলেও তাঁর অভিযোগ। সৌম্য’র মাথায় আঘাত লেগেছে। তাঁর মাথায় সিটি স্ক্যান করা হয়েছে জানা গেছে। প্রাথমিকভাবে ডাক্তার বলেছে, মাথায় গুরুতর চোট লাগেনি।

এদিকে, পুলিশের এই ন্যাক্কারজনক ভূমিকায় সবাই প্রতিবাদে সরব। যাদবপুরে ছাত্ররা বিক্ষোভ দেখিয়েছে। আগামীকাল বইমেলাতেই লিটিল ম্যাগাজিনের স্টল চত্বরে বিক্ষোভ হবে বিকেল তিনটের সময়।

 

Facebook Comments